দিল্লিতে আইসিস জঙ্গি , পাঞ্জাব সীমান্তে নিহত ৫

আন্তর্জাতিক
Spread the love

পঞ্জাবের ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের গুলিতে নিহত হয়েছে পাঁচ জন অনুপ্রবেশকারী। অভিযোগ, এই পাঁচ জন তার্ন তারান জেলার খেমকারান সীমান্ত দিয়ে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছিল। সীমান্ত টহল দেওয়ার সময়ে এদের গতিবিধি নজরে আসে বিএসএফ-এর। এক আধিকারিক জানিয়েছেন, সীমান্ত পেরিয়ে অনুপ্রবেশকারীদের ঢুকতে দেখেই তাদের থামার নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু তার পরিবর্তে তারা এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। আত্মরক্ষায় পালটা গুলি চালান বিএসএফ জওয়ানরা। খবর অনুযায়ী ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার ভোর ৪.৪৫ নাগাদ। তবে অনুপ্রবেশকারীদের কোনও পরিচয় এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। রাতের অন্ধকারে আর কেউ সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে পড়েছে কিনা তা দেখতে সীমান্তবর্তী এলাকায় চলছে চিরুনি তল্লাশি।

এদিকে, দিল্লি থেকে এক সন্দেহভাজন আইসিস সন্ত্রাসবাদীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে ওই আইসিস সদস্যকে ধরার আগে গুলির লড়াই চলে পুলিশের সঙ্গে। ধৃত ব্যক্তির নাম আবু ইউসুফ। সেই একটি হামলার পরিকল্পনা করছিল বলে জানিয়েছে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল।তার কাছ থেকে দুটি ইম্প্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস এবং একটি পিস্তল পাওয়া যায়। দিল্লিতে একটি লোন উলফ অ্যাটাক-এর পরিকল্পনা সে করছিল বলে বিশেষ সূত্রে জানতে পারে পুলিশ। দিন কয়েক আগেই আইসিসের সঙ্গে যোগাযোগ থাকার অভিযোগে বেঙ্গালুরু থেকে এক চিকিত্‍সককে গ্রেফতার করে পুলিশ। বেঙ্গালুরুর এমএস রামাইয়া মেডিক্যাল কলেজে অপথামোলোজিস্ট হিসেবে কাজ করতেন রহমান নামে ২৮ বছরের ওই ব্যক্তি। দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের ডিসিপি প্রমোদ সিং খুশওয়া জানিয়েছেন, দিল্লির ধৌলা খান এলাকা থেকে আইসিসের একজন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে স্পেশাল সেল। পুলিশ সূত্রে খবর, সন্দেহভাজন ব্যক্তি দিল্লির বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখেছিল। একার হাতে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর পরিকল্পনা সে করছিল বলে সন্দেহ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বুধবার সন্ধ্যায় জম্মু-কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলার হন্দওয়াড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে এনকাউন্টারে কমপক্ষে ২ লস্কর-ই-তৈবা জঙ্গি নিহত হয়েছে। নিহতদের একজন কাশ্মীর পুলিশের খাতায় মোস্ট ওয়ান্টেড লস্কর কম্যান্ডার।অন্যদিকে, চলতি বছর এ পর্যন্ত দু’ডজনের উপর জঙ্গি কম্যান্ডারকে খতম করে জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদীদের নেতৃত্বের পরিকাঠামোকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এমনটাই মত জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের শীর্ষ কর্তার। জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল দিলবাগ সিং জানিয়েছেন , বিগত সাড়ে ৭ মাসে এমন ২৬ জঙ্গিকে এনকাউন্টারে নিকেশ করা হয়েছে, যারা সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের একদম শীর্ষে, নয়তো দু-নম্বর পজিশনে ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *